Join Our Telegram(39K+) Join Now
Join Whatsapp Group Join Now

ফেল করেছিলেন উচ্চ মাধ্যমিকে, প্রেমিকার উৎসাহ ও অনুপ্রেরণায় আজ তিনি IPS অফিসার !



কথায় আছে "Behind every successful man, there is a woman.." আজকের গল্প আইপিএস মনোজ শর্মার সাফল্যের গল্প। তার সাফল্যের পথে উৎসাহ এবং অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন তার প্রেমিকা।

মনোজ শর্মার জন্ম মধ্যপ্রদেশে। একটি নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারে তার জন্ম। তার এক ভাই এবং এক বোন আছে। ছোটবেলা থেকেই তার স্বপ্ন ছিল প্রশাসনিক বিভাগে চাকরি করা, কিন্তু নবম ও দশম শ্রেণীতে তৃতীয় বিভাগে পাস করেছিলেন তিনি। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় হিন্দি বাদ দিয়ে  সমস্ত বিষয়ে ফেল করেছিলেন । এই সময়টা তার জীবনের সবথেকে খারাপ সময় ছিল।

এরপরে মনোজ উপার্জনের জন্য অটো রিকশা চালাতে শুরু করেন। সেইসাথে দ্বাদশ শ্রেণীতে ভালোভাবে পড়াশোনা করাও শুরু করেন। এরমধ্যেও তিনি সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় পাশ করার আশা ছাড়েননি। মহারানি লক্ষী বাই কলেজ অব এক্সিলেন্স থেকে তিনি স্নাতক কোর্স করেন।

"দ্বাদশ ফেল" নামে তিনি একটি বই লিখেছেন। সেই বইটা তার জীবনের সমস্ত ওঠাপড়ার গল্প লেখা আছে। 

সেই বইতে তিনি লিখেছেন পরীক্ষার প্রস্তুতির সময় দিন গুলিতে তিনি ভিক্ষুদের সাথে শুতেন মন্দিরে, রাস্তায় কুকুরদের সাথে হাঁটতেন। পরিবারের ভরণ পোষণের চাপও ছিল তার ওপরে।

একবার তার অটোরিকশা পুলিশ আটক করে। SDM এর কাছে অটোরিকশা ছাড়ানোর জন্য যাবার পর ফেরার পথে তিনি তাকে জিজ্ঞেস করলেন কিভাবে ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট হওয়া যায় তার মত। 

তখন তার এ বিষয়ে কোনো রকম জ্ঞান ছিল না। সেই SDM তাকে গাইড করে MPPSC ক্র্যাক করার জন্য এবং একটি ভালো রেজাল্ট করার জন্য।

মনোজ শর্মার আরেকজন অনুপ্রেরণা ছিলেন তার ভালোবাসা শ্রদ্ধা যোশি। তার সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার প্রিপারেশন নেওয়ার সময় তিনি শ্রদ্ধাকে ভালোবেসে ফেলেন, কিন্তু তাকে বলার সাহস তার হয়নি। কিছুদিন পরে তিনি মনের কথা বলেন। এরপর শ্রদ্ধা যোশীর মোটিভেশন তাকে জীবনের কঠিন বাধাগুলো পার হতে সাহায্য করে। 

Read more:

সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় প্রথম তিন বারের প্রচেষ্টায় তিনি অকৃতকার্য হন কিন্তু তার ভালোবাসা শ্রদ্ধা যোশি তাকে আরও উৎসাহ যোগাতে থাকেন। চতুর্থবারের চেষ্টার পর ২০০৫  সালে তিনি একজন সফল আইপিএস অফিসার হিসেবে তিনি ফিরে আসেন।

বর্তমানে মনোজ শর্মা মহারাষ্ট্রের অ্যাডিশনাল পুলিশ কমিশনার হিসেবে নিযুক্ত আছেন। তার স্ত্রী শ্রদ্ধাও  2007 ব্যাচের IRS অফিসার।

ভালবাসার মত বড় অস্ত্র হয়তো আর নেই। এটি যেমন মানুষকে ভাঙার ক্ষমতা রাখে তেমনি মানুষকে গড়ার ক্ষমতাও রাখে।  

ভালোবাসা যে মানুষকে একজন প্রশাসনিক কর্তাও বানিয়ে ফেলতে পারে মনোজ শর্মার গল্প না জানলে হয়তো জানতেই পারতাম না আমরা। বর্তমানে মনোজ শর্মা এবং তার স্ত্রী যুব সমাজের অনেকের কাছে অনুপ্রেরণা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ